ওয়েব ডিজাইন কি ? কেনো শিখবেন ওয়েব ডিজাইন? কিভাবে ইনকাম করবেন

অনলাইন জগতে সবার কাছেই শুনতে পাই ওয়েব ডিজাইন এর কথা। আসলে ওয়েব ডিজাইন টা কি জিনিস।
কি করে এটা দিয়ে, কিভাবে ইনকাম করে ওয়েব ডিজাইন থেকে। আজকে সকল প্রশ্নের উত্তর দিবো আপনাদেরকে।

ওয়েব ডিজাইন কি?

একদম সহজ ভাষায়, ওয়েব ডিজাইন হলো ওয়েব পেজ ডিজাইন করা। বুঝিয়ে বললে দাড়ায়, আপনি এই মুহুর্তে নীলব্লগের যে পেজটা দেখতেছেন এটাই হলো একটা ওয়েব পেজ এবং এটার যে ডিজাইন করা হয়েছে মুলত এটাকেই ওয়েবপেজ ডিজাইন বলে।

কি কি শিখতে হবে?

ওয়েবপেজ ডিজাইন করা হয় মুলত কিছু ওয়েব স্ক্রিপ্টিং ল্যাংগুয়েজ দিয়ে। যেমন HTML, CSS, JavaScript। আপনাকে এইসব ভাষা শিখতে হবে। এসব ভাষা শিখা খুবই সহজ। আপনি যদি প্রতিদিন ঠিকমত সময় দিতে পারেন এবং প্রাকটিস করেন তাহলে এক মাসের মধ্যেই সাধারন মানের একজন ওয়েব ডিজাইনার হতে পারবেন।
প্রাকটিস করার জন্য আপনাকে কম্পিউটারের নোটপ্যাড ব্যবহার করতে হবে। তাছাড়া আপনার এন্ডুয়েড মোবাইল দিয়েও প্রাকটিস করতে পারেন। এজন্য গুগল প্লেস্টোর থেকে নোটপ্যাড বা টেক্সট এডিটর নামিয়ে কাজ করতে পারেন। এরপর আপনার ডিজাইনগুলো দেখতে গুগলক্রোম, মজিলা, অপেরা মিনি, বা সাফারি ব্যবহার করতে পারেন।

কেনো ওয়েব ডিজাইন শিখবেন :

আপনি যদি মনে করেন আপনি অনলাইন এ ক্যারিয়ার গড়বেন তাহলে আপনাকে অবশ্যই HTML and CSS সম্পর্কে ধারনা রাখতে হবে। আপনি যে ক্ষেত্রেই কাজ করেন না কেনো, আপনার কোন না কোন ভাবে HTML ও CSS কাজে লাগবেই। আর যদি আপনি ওয়েব ডেভেলপমেন্টে ক্যারিয়ার গড়তে চান তাহলে আপনাকে অবশ্যই ওয়েব ডিজাইন শিখতে হবে। ওয়েব ডিজাইনিং হলো ওয়েব ডেভেলাপমেন্ট শিখার প্রথম ধাপ।

ওয়েব ডিজাইন শেখার কিছু সহায়ক :

ওয়েব ডিজাইনের জন্য Html, Css, JavaScript শিখতে পারেন স্যাট একাডেমিওয়েবকোচবিডি থেকে। তাছাড়াও শিখতে পারবেন W3schools থেকে।
ওয়েব ডিজাইন শিখতে রকমারিতে কিছু সহায়ক বই কিনতে পারেন। আমি রিকমেন্ড করবো মাহাবুবুর রহমান স্যারের “মাস্টারিং ওয়েব ডেভলপমেন্ট” বইটি কিনতে। কারন এই বইয়ে আপনি ওয়েব ডিজাইন এবং ওয়েব ডেভলপমেন্ট দুটাই শিখতে পারবেন। তাছাড়া এতে ডেভলপমেন্ট শিখার জন্য বেসিক যতগুলা ভাষা আছে তার সবই পাবেন।
এছাড়াও আপনি ইউটিউবে ভিডিও দেখেও শিখতে পারেন। তাছাড়া অনলাইনের বিভিন্ন কোচিং করেও শিখতে পারেন। আপনার কাছে শেখার সবচেয়ে সহজ যেটা মনেহয় আপনি সেটা দিয়েই শিখতে পারেন।
আপনি গুগলে সার্চ করেও অনেক কিছু শিখতে পারবেন, তবে আপনাকে সার্চ করার ভালো ইচ্ছা থাকতে হবে। কারন আমি মনে করি গুগল হচ্ছে শিক্ষকেরও শিক্ষক। একে যে ভালোভাবে ব্যবহার করতে পারে তারই সাফল্য আসে। আমি রিকমেন্ড করবো আপনি বেশি বেশি করে গুগল সার্চ করুন এবং বেশি বেশি জানুন, কারন বেশি জানতে পারলে আপনি অন্যদের থেকে একধাপ বেশি এগিয়ে থাকতে পারবেন।

অনলাইন মার্কেটে ওয়েব ডিজাইনের চাহিদা :

অনলাইনে ওয়েব ডিজাইনের চাহিদা অনেক। কারন বর্তমানে সকল কাজই অনলাইনে করা যাচ্ছে, কোনোকিছু কিনতে গেলেও আমরা অনলাইনের সহায়তা নিচ্ছি। আবার কোনো বিষয় জানতে গেলেও অনলাইনে সার্চ করতেছি। অনলাইন মার্কেটে বায়াররা ভালো এবং দক্ষতা সম্পর্ন ডিজাইনার খোজ করে থাকেন। কারন দক্ষতা না থাকলে এ সেক্টরে কাজ পাওয়া একটু বেশি কঠিন হয়ে পরে। তাছাড়া এই সেক্টরে কাজের মুল্যও অনেক বেশি।
অনলাইন মার্কেট প্লেসগুলাতে ওয়েব ডিজাইনাররা প্রতি ঘন্টায় ৫-১০ ডলার করে ইনকাম করতে পারে।
আপনি এর রেফারেন্স খুজতে পারেন আপওয়ার্ক, ফ্রিলান্সার ডট কম, ফাইভার এই সব মার্কেটপ্লেসগুলাতে।

কিভাবে ইনকাম করবেন :

অনলাইনে অনেক মার্কেটপ্লেস আছে যেগুলাতে আপনি একাউন্ট করে কাজের জন্য বিড করতে পারেন। যেমন Upwork.Com Freelancer.Com Fiverr.Com এগুলাতে বায়ার যেসব কাজ খুজে আপনি যদি সেই কাজে দক্ষ হন তাহলে সেই কাজে বিড করে কাজটা নিতে পারেন। তবে আপনাকে বিড করার কৌশল জানতে হবে। বিড করলেই যে কাজ পাবেন তা কিন্তু না। বায়ারকে খুশি করতে পারলেই আপনি কাজটা পাবেন। তাছাড়া আপনি আপনার পুর্বের কাজের কিছু রেফারেন্স হিসেবে পোর্টফলিও সাইট বানাতে পারেন, এবং সেটা বায়ারকে দেখিয়ে কাজ নিতে পারেন। আপনি শুধু ওয়েব ডিজাইন করেই মাসে ৫০০-৭০০ ডলার ইনকাম করতে পারবেন।

এ সেক্টরে সাফল্য পেতে যা করতে হবে :

ধৈর্য্য, হ্যা এই সেক্টরে সাফল্য পেতে গেলে আপনাকে প্রথমত ধৈর্য্য ধরে কাজ করতে হবে, এবং শিখার জন্য পূর্ণ ইচ্ছাশক্তি থাকতে হবে। কারন এগুলা না থাকলে আপনি সামনে এগুতে পারবেন না। আর হ্যা এই শিখার পিছনে যথেষ্ট সময় দিতে হবে। আপনাকে অবশ্যই শিখে তারপর ইনকামের চিন্তা করতে হবে। যদি আগেই টাকা ইনকামের চিন্তা করেন তাহলে আপনার জন্য এই সেক্টর না। দক্ষতা থাকলে আপনাকে টাকার চিন্তা করতে হবেনা। টাকা তখন আপনার পিছনে ছুটবে।

আপনি ডিজাইনের পাশাপাশি ওয়েব ডেভলপমেন্ট শিখতে পারলে ইনকাম আরো তিনগুন বৃদ্ধি করতে পারবেন। এক্ষেত্রে আপনাকে দিতে হবে আরো এক থেকে দেড় বছর সময়। এবং আপনাকে কাজের পোর্টফলিও রাখতে হবে। কারন কাজ পাওয়ার জন্য আপনাকে পোর্টফলিও যথেষ্ট সাহায্য করবে।
ওয়েব ডেভলপমেন্ট নিয়ে আমাদের ওয়েবসাইটেই পোষ্ট করা আছে সেগুলা দেখতে পারেন এখানে।।

পোষ্ট সম্পর্কে আপনার কোনো মতামত বা প্রশ্ন থাকলে নিচে কমেন্ট করুন। এই পোষ্টটি ভালো লাগলে নিচে Shere বাটনে ক্লিক করে আপনার অন্য বন্ধুদের শেয়ার করুন যেনো তারাও জানতে পারে।

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *